শুক্রবার, ২৪ নভেম্বর ২০১৭, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৪, ৫ রবিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন (GMT)
ব্রেকিং নিউজ :
X
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


শনিবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৭ ০১:০৯:১২ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

লক্ষ্মীপুরে তিন ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগ, অভিযুক্ত শিক্ষক আটক

লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুর সদরের নন্দপুর কাদেরিয়া দাখিল মাদ্রাসার পঞ্চম, অষ্টম ও নবম শ্রেণীর তিন ছাত্রীকে যৌন হয়রানীর অভিযোগে একই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ইমাম হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে অভিযোগের ভিত্তিতে মাদ্রাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানান, শিক্ষক ইমাম হোসেনের নিকট মাদ্রসা ছাত্রীরা কৃষি বিষয়ে প্রাইভেট পড়তো। প্রাইভেট শেষে ওই শিক্ষক শিক্ষার্থীদের প্রায় সময় ডেকে নির্দিষ্ট একটি রুমে নিয়ে একাধিকবার যৌন হয়রানী করেছে। এছাড়া ফ্রি প্রাইভেট পড়ানোর কথা বলেও একাধিক ছাত্রীদের সাথে তিনি যৌন হয়রানীর চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। যৌন হয়রানীর শিকার ভুক্তভোগী ছাত্রীরা মাদ্রাসা সুপারের নিকট দুইবার লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। পরে মাদ্রাসা সুপার আতিকুর রহমান অভিযুক্ত শিক্ষক ইমাম হোসেনকে দুই দফায় কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচারের দাবিতে (আজ) শনিবার মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে বিক্ষোভ করেন প্রদর্শন করেন ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক ও স্থানীয়রা। প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সৈয়দ আবুল কাশেম জানান, অভিযুক্ত শিক্ষক বিভিন্ন সময় ছাত্রীদের যৌন হয়রানী করতো বলে একাধিক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটির সিদান্তক্রমে শিক্ষক ইমাম হোসেনকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। পরে খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষক ইমাম হোসেনকে আটক করে নিয়ে যায়। সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হোসেন জানান, অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। এখন আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।





আরো খবর