বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৮, ৫ মাঘ ১৪২৪, ১ জমাদিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ০৪:০২ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৮ ১০:৫৫:০৩ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

রাখাইনে 'গ্যাস টার্মিনাল' করতে চায় চীন

চাহিদা পূরণে মিয়ানমারে প্রাকৃতিক গ্যাসের নতুন উৎস সন্ধান করছে চীনের সবচেয়ে বড় তেল কোম্পানি চায়না ন্যাশনাল পেট্রোলিয়াম কোরের (সিএনপিসি) একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান। এ লক্ষ্যে সহিংসতা কবলিত রাখাইন রাজ্যে একটি গ্যাস টার্মিনালও নির্মাণ করার কথা ভাবছে চীনা সরকার। শুক্রবার চীনা গণমাধ্যম চায়না ডেইলির বরাত দিয়ে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে। রয়টার্সের ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান গ্যাস পাইপলাইনের সরবরাহ সংকট মেটাতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। গ্যাস পাইপলাইন প্রকল্পের ভাইস-প্রেসিডেন্ট চেন জিয়াংকুই জানান, সিএনপিসির সহযোগী প্রতিষ্ঠান সিএনপিসি সাউথইস্ট এশিয়া পাইপলাইন কোম্পানি লিমিটেড বর্তমানে মিয়ানমার থেকে পরিচালিত হচ্ছে। এই কোম্পানিটিই অতিরিক্ত গ্যাস সরবরাহের জন্য দেশটিতে নতুন খনির সন্ধানে নেমেছে। মিয়ানমারের দায়েয়ু ইন্টারন্যাশনালের গ্যাসক্ষেত্র থেকে গ্যাস সরবরাহে ২০১৩ সালের মাঝামাঝি দেশটির সরকারের সঙ্গে চুক্তি করে কোম্পানিটি। চেন বলেন, মিয়ানমারে নতুন গ্যাসক্ষেত্র খুঁজছে সিএনপিসি। দায়েয়ু ইন্টারন্যাশনাল ও অন্যদের গ্যাসক্ষেত্র থেকেও গ্যাস সরবরাহ ধরে রাখবে তারা। রাখাইনে একটি গ্যাস টার্মিনাল নির্মাণ পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি। মিয়ানমার-চীন পাইপলাইন এখান থেকেই শুরু হয়েছে। সম্প্রতি রাজ্যটিতে মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর সহিংসতার মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে সাড়ে ছয় লাখের বেশি রোহিঙ্গা।




আরো খবর