রোববার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৪, ৪ জমাদিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ০২:৪১ অপরাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৮ ০৪:১৬:৩২ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

জঙ্গি আস্তানা’ রুবি ভিলায় মিলেছে তিন লাশ

ঢাকা: রাজধানীর তেজকুনিপাড়া ও নাখালপাড়া সীমান্তে অবস্থিত ‘রুবি ভিলা’ নামের সন্দেহজনক ‘জঙ্গি আস্তানায়’ গোলাগুলির পর তিনটি লাশ পাওয়া গেছে। র‍্যাবের দাবি, নিহত তিনজনই জঙ্গি। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটা থেকে ছাপড়া মসজিদ সংলগ্ন ১৩/১ রুবি ভিলা নামে ৬তলা ভবনটি ঘিরে রাখার পর শুক্রবার পঞ্চম তলায় অভিযান শুরু করে র‌্যাব। ভবনটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ১০০ মিটারের কিছুটা বেশি দূরত্বে এবং সাংসদ সদস্যদের সরকারি বাসভবন বা ন্যাম ভবনের কাছাকাছি অবস্থিত। র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান ‘জঙ্গি আস্তানায়’ তিনজন নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে র‍্যাব সূত্রে জানা গেছে, ছয়তলা বাসার পঞ্চম তলায় মেস বাসা ছিল এটি। সেখানে ৩ জন মারা যেতে পারে। স্থানীয় বাসিন্দা রুহুল অামিন একটি গণমাধ্যমকে বলেন, ওই বাসায় কিছু ব্যাচেলর ভাড়া থাকে। তবে অামাদের কাছে কখনওই জঙ্গি বলে মনে হয়নি। র‌্যাব সূত্র জানিয়েছে, বাড়িটির ভেতরে বিপুল পরিমান বিস্ফোরণ ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। ঘটনাস্থলে র‌্যাবের বোম ডিস্পোজাল টিমের সদস্যরা কাজ করছেন। ওই বাড়ির আশপাশ থেকে সাধারণ বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। র‌্যাবের মুখপাত্র মুফতি মাহমুদ খান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৬ তলা বাড়িটির পঞ্চম তলায় কয়েকজন জঙ্গি সদস্য রয়েছেন বলে তারা জানতে পারেন। এই তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালাতে গেলে বাড়ির ভিতর থেকে গুলিবর্ষন ও গ্রেনেড ছুড়ে মারা হয়। র‌্যাব সদস্যরা পাল্টাগুলি ছুঁড়লে হতাহতের ঘটনা ঘটে। এতে দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছেন বলে জানান তিনি। ভিতরে কয়কেজন জঙ্গির লাশ রয়েছে। এছাড়াও প্রচুর বিস্ফোরক ছড়ানো ছিটানো রয়েছে। মুফতি মাহমুদ খান জানান, ‘ভবনটির অন্যান্য বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে। আমরা ভবনটির বাসিন্দাদের জীবন ঝুঁকিমুক্ত রাখতে চাই। ভেতরে মোট কতজন জঙ্গি অবস্থান করছে তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। আহত দুই র‌্যাব সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।’ এ ঘটনায় এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। ভোরে জঙ্গিবিরোধী অভিযান শুরু হলে হঠাৎ গুলি আর গ্রেনেডের শব্দে কেঁপে ওঠে গোটা এলাকা। অনেককে চিৎকার-চেঁচামেচি করতেও শোনা যায়। মুফতি মাহমুদ খান বলেন, ‘র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে জঙ্গিরা গুলি ও গ্রেনেড ছুড়তে থাকে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এখনও ভেতরের অবস্থা কিছু জানতে পারিনি। বাসাটা ঘেরাও রেখে আমরা অভিযান শুরু করেছি।’ এর পর সকাল সোয়া ৭টার দিকে তিনি বলেন, ‘৬ তলা ভবনের পঞ্চম তলায় জঙ্গিরা অবস্থান করছে। র‌্যাবের গুলিতে ভেতরে একাধিক জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ভেতরের সার্বিক অবস্থা এখনও স্পষ্ট নয়।’ মুফতি মাহমুদ খান বলেন, ‘গোলাগুলি হয়েছে। এখানে ক্যাজুয়ালটি (মারা যাওয়ার ঘটনা) হয়েছে। ক্যাজুয়ালটি আছে ভেতরের দিকে। গ্রেনেড ছুড়েছে তাই সে ক্ষেত্রে ভেতরে ঢোকা নিরাপদ নয়। কিন্তু ভেতরে কয়েকজন ক্যাজুয়ালটি হয়েছে।’ র‍্যাবের গণমাধ্যম শাখা থেকে এসএমএসে জানানো হয়, রাজধানীর পূর্ব তেজকুনিপাড়ায় ‘জঙ্গি আস্তানা’ সন্দেহে একটি বাড়ি ঘিরে অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাব। সেখানে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।




আরো খবর