বুধবার, ১৬ আগস্ট ২০১৭, ১ ভাদ্র ১৪২৪, ২৩ জিলকদ, ১৪৩৮ | ১১:২৯ অপরাহ্ন (GMT)
ব্রেকিং নিউজ :
X
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
সোমবার, ১৯ জুন ২০১৭ ০৪:১৯:০১ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

মন্ত্রিসভায় ভূ-গর্ভস্থ পানি ব্যবস্থাপনা আইন- ২০১৭’ এর খসড়া অনুমোদন

ঢাকা: মন্ত্রিসভায় ‘কৃষি কাজে ভূ-গর্ভস্থ পানি ব্যবস্থাপনা আইন- ২০১৭’ এর খসড়া অনুমোদন দেয়া হয়। লাইসেন্স ছাড়া কৃষি কাজের জন্য নলকূপ স্থাপনে শাস্তি বাড়িয়ে তৈরি করা আইনের খসড়া চূড়ান্ত করেছে সরকার। জাতীয় সংসদ ভবনে সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। পরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের জানান, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী সামরিক শাসনামলে প্রণীত ‘দ্য গ্রাউন্ড ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট অর্ডিন্যান্স, ১৯৮৫’-কে বাংলায় অনুবাদ করে আইনে রূপান্তর করা হচ্ছে। তিনি বলেন, নলকূপ স্থাপনে লাইসেন্স নেয়ার বিধান আগের অর্ডিনেন্সেও ছিল। তবে এবার দণ্ডের পরিমাণটা বাড়ানো হয়েছে। “আগে জরিমানা ছিল সর্বোচ্চ দুই হাজার টাকা। নতুন আইনে তা বেড়ে হচ্ছে ১০ হাজার টাকা বা অনাদায়ে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড। আগের আইনে জরিমানা অনাদায়ে কারাদণ্ডের বিষয়টিও ছিল না।” মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, উপজেলা পরিষদ নলকূপের লাইসেন্স স্থগিত ও বাতিল করতে পারবে। বিদ্যমান নলকূপগুলোকে সময় দিয়ে লাইসেন্স নেয়ার সুযোগ দেওয়া হবে। শফিউল আলম বলেন, ‘‘খসড়া আইনেও আগের মতোই ‘উপজেলা সেচ কমিটি’র গঠনের বিধান রাখা হয়েছে, যা উপজেলা পরিষদের নির্দেশনায় পরিচালিত হবে। লাইসেন্স দেয়ার আগে কমিটি সরেজমিনে পরিদর্শন করবে। কোনো জায়গায় নলকূল স্থাপনের প্রয়োজন আছে কি না সেটা দেখবে। নিকটবর্তী নলকূপের দূরত্ব কতটুকু তা দেখবে। কারণ আমরা যদি ভূ-গর্ভস্থ পানি ব্যবহার করতে থাকি তাহলে পরিবেশ বিপর্যয়ের সম্ভাবনা আছে। সেটাকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এ আইনটাতে বিধান রাখা হয়েছে।”

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর