রোববার, ২৩ জুলাই ২০১৭, ৮ শ্রাবণ ১৪২৪, ২৮ শাওয়াল, ১৪৩৮ | ০৪:৫২ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
রোববার, ১৬ জুলাই ২০১৭ ০৬:৩০:১১ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

তুরস্কে ব্যর্থ অভ্যুত্থানের প্রথম বার্ষিকীতে জনগণের প্রশংসা করলেন এরদোগান

তুরস্কে ব্যর্থ অভ্যুত্থান ঠেকিয়ে দেয়ার এক বছর পূর্ণ হয়েছে। এই অভ্যুত্থান ঠেকিয়ে দিতে ভূমিকা রাখায় তুরস্কের জনতাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট এরদোগান। অভ্যুত্থান ঠেকানোর বছরপূর্তি উপলক্ষে, লাখো লোকের এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন। তুরস্কে গত বছরে একটি ব্যর্থ অভুত্থান প্রচেষ্টা জনগণ ঠেকিয়ে দেয়ার বছর পূর্তি উপলক্ষে ইস্তানবুলে আয়োজন করা হয় বিশাল এক সমাবেশের। হাজার হাজার লোকের সেই সমাবেশে সকলে মিলে গেয়েছে জাতীয় সঙ্গীত। উচ্ছসিত জনগণ হাতে হাতে নিয়ে বেরিয়েছে জাতীয় পতাকা। বিবিসির খবর। কঠিন সেই সময়ে নিজেদের জীবন বাজি রেখে দেশকে যারা রক্ষা করেছেন, তাদেরকে স্মরণ করে, সমাবেশে আবেগঘন এক বক্তৃতা দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট এরদোগান। অভুত্থানের সেই রাতকে স্মরণ করে তিনি বলেন, ‘সেই রাতে মানুষের হাতে কোনো অস্ত্র ছিলো না, তাদের হাতে ছিল একটি পতাকা আর সবচেয়ে বড় কথা, তাদের ছিল বিশ্বাস।’ এই সমাবেশে যোগ দেয়া অনেকেই বলছেন, দেশের প্রতি তাদের সমর্থন প্রকাশ করতেই সমাবেশে তারা যোগ দিয়েছেন। সমাবেশে অংশ নেয়া জুলফিকার কাহারমান নামে একজন বলছেন, ‘আমি জানি না সেই রাতে কেন যে আমার মুত্যু হয়নি! এই কথা এখনো আমাকে তাড়া করে বেড়ায়। কেন আমি ট্যাঙ্কের সামনে সিনা টান করে দাঁড়াইনি? দেশের প্রয়োজনে আমি নিজেকে নির্ভয়ে উৎসর্গ করতে পারি।’ গত বছরের ১৫ জুলাই তুরস্কের ব্যর্থ অভ্যুত্থানে প্রাণ হারায় মোট ২৫০ জন মানুষ। আর আহত হয় প্রায় ২১৯৬ জন। অভুত্থান প্রচেস্টার পর, অভ্যুত্থানের সমর্থনকারী সন্দেহে, ৫০ হাজার জনকে গ্রেপ্তার এবং প্রায় দেড় লাখ মানুষকে চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে।

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর