রোববার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩ পৌষ ১৪২৪, ২৮ রবিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ১২:২৬ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০১৭ ০৪:৩৯:২৬ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

১৩ বছরের প্রতিবন্ধীকে ৬৫ বছরের বৃদ্ধের ধর্ষণ

পটুয়াখালির গলাচিপা থানায় ঘটনার ৮ দিন পর পুলিশ ধর্ষিতা বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিমুকে (১৩) উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। এ কিশোরীকে ধান ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করেছে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ। সোমবার সকালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কিশোরীকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজে পাঠিয়েছেন পুলিশ। এ ঘটনায় রোববার রাতে প্রতিবন্ধী মেয়েটির ভাই মো. রুবেল মৃধা বাদি হয়ে মো. আবু বকর গাজীর (৬৫) বিরুদ্ধে গলাচিপা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গজালিয়া গ্রামে। মামলার অভিযোগ ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ১২ই নভেম্বর বিকালে শিশুটি গাভী গরুকে ঘাস খাওয়ানোর জন্য বাড়ির পশ্চিম পাশে ধান ক্ষেতে যায়। এ সময় একই এলাকার আবু বকর গাজী প্রতিবন্ধী শিশুটিকে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে নানা প্রলোভন দেখায়। এক পর্যায়ে ভয়-ভীতি দেখায়। পরে ৫০টাকা মেয়েটির ওড়নায় বেঁধে দিয়ে ধান ক্ষেতে তাকে ধর্ষণ করে। প্রতিবন্ধী শিশুটির চিৎকার শুনে তার ভাইয়ের স্ত্রী লিজা বেগম ঘটনাস্থলে ছুটে আসলে ধর্ষক আবু বকর গাজী পালিয়ে যায়। বাদী মো. রুবেল মৃধা জানান, আবু বকর গাজী প্রভাবশালী হওয়ায় ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে গত কয়েকদিন ধরে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। আমাদের অনেক ভয়ভীতি দেখানো হয়েছে। পরে আমরা আবু বকরের বিরুদ্ধে গলাচিপা থানায় মামলা দায়ের করি। রোববার রাতে ধর্ষিতা শিশুটিকে গলাচিপা থানা পুলিশ উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাহিদ হোসেন বলেন, ‘শিশুটিকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য পটুয়াখালী পাঠানো হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।





আরো খবর