শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৮ জমাদিউল আওয়াল, ১৪৩৮ | ০৯:১৫ অপরাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ ১১:৩৩:১৫ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলামকে অস্ট্রেলিয়া বিএনপির ঝাড়ৃ প্রদর্শন

আমারদেশ রিপোর্ট :
খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলামকে দুর্নীতিবাজ ও হত্যাকারী ইত্যাদি বলে তার বিপক্ষে ব্যাপক  বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে অস্ট্রেলিয়া বিএনপি।
৫ ফেব্রুয়ারী কুজি বীচের একটি বাংলাদেশী রেস্টুরেন্টের সামনে এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে আওয়ামী লীগের একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হয়ে এসেছিলেন কামরুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানস্থলে কামরুল ইসলাম আসার পর পরই তার ঠিক সামনের রাস্তায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করে অস্ট্রেলিয়া বিএনপির নেতাকর্মীরা। এসময় তারা হাতে ঝাড়ু , জুতা ইত্যাদি নিয়ে নানান শ্লোগান দিতে থাকে। তাদের হাতে ছিল কিলার , দুর্নীতিবাজ  , রাজাকার , ভোটচোর , গমচোর ইত্যাদি লেখা ব্যানার ও ফেস্টুন।

 

 

আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠান থেকে এক পর্যায়ে দুএকজন জবাব দেয়ার চেষ্টা করলে বেশ উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এসময় বিএনপির নেতাকর্মীদের উত্তেজিত হয়ে উঠতে দেখা যায়। তারা তাদের অবস্থান পরিবর্তন করে আরেকটু সামনে গিয়ে দ্বিগুন গতিতে খাদ্যমন্ত্রীকে প্রতিহত করার কথা বলতে থাকেন।
ভিতরে খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলামকে নিয়ে তখন অনুষ্ঠান শুরু করা হয়। কিন্তু অনুষ্ঠান ছাপিয়ে বাইরে বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মীদের বিক্ষুব্ধ বক্তৃতা আর শ্লোগানে মুখরিত ছিল রাস্তা। এসময় অনেক বিদেশী নাগরীককে ঘটনার কারন ও খাদ্যমন্ত্রীর দুর্নীতি সম্পর্কে জিজ্ঞেস করতে দেখা গেছে। অনেক উৎসাহী পথচারী ছবি তুলে নিয়ে যান।

সিডনি বিএনপি বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত থাকলেও কামরুল ইসলামকে প্রতিহত করার প্রশ্নে প্রায় সবগুলো গ্রুপকে একত্রে কাজ করতে দেখা যায়।
এ বিক্ষোভে বিএনপি নেতা ,  লিয়াকত আলী স্বপন, এস এম নিগার এলাহী চৌধুরী, মো: লুৎফুল কবির, মো: মোসলেহউদ্দিন হাওলাদার আরিফ, মো: নাসিম উদ্দিন আহম্মেদ, একে এম ফজলুল হক শফিক, মো: মোবারক হোসেন, সোহেল ইকবাল মাহমুদ, এ এন এম মাসুম, ইঞ্জিনিয়ার মো: কামরুল ইসলাম শামীম, মো: জামিল হোসাইন, যুবনেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, মো:আবুল কাশেম, আবুল হাসান, মোঃ মোহাইমেন খান মিশু, এস.এম খালেদ, শেখ আবদুলাহ আল মামুন, আশরাফুল আলম রনি, খায়রুল কবির পিন্টু, জাবেদ হক জাবেল, অনুপ আন্থনী গোমেজ, মো: জাকির আলম লেলিন, এহসালুল হক ইসমাইল, নজরুল ইসলাম, আরমান হোসেন ভুইয়া, মো: আমজাদ হোসেন, আব্দুল মজিদ, নিজাম উদ্দিন বকুল, মিতা কাদরী, মো: মঈন উদ্দীন, নুর আলম, আমিনুল ইসলাম, মাহাবুবুর রহমান, আশরাফুল আলম, ফরিদ উদ্দিন, রমজান আলী, শামছুজ্জামান টিটুসহ প্রচুর সংখ্যক নেতাকর্মী অংশ নেন ।
বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে এই বিক্ষোভের উদ্যোক্তা যুবদল নেতা হাবিবুর রহমান বলেন , কামরুল ইসলাম একজন বিতর্কীত মন্ত্রী । তিনি শহীদ জিয়া সম্পর্কে বানোয়াট কথা বলেছেন , কটুক্তি করেছেন। তার দুর্নীতি বিশ্ববিখ্যাত। এমন কাউকে আমরা অস্ট্রেলিয়ায় দেখতে চাইনা। তাকে সংবর্ধনা দেয়ায় অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের নিন্দা করে হাবিব বলেন, ভবিষ্যতে আমরা অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগকে কোনো দুর্নীতিবাজকে প্রশ্রয় না দেয়ার আহ্বান জানাই।
বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল হক বলেন, ''এভাবে বিক্ষোভ করাটা ভাল সংস্কৃতি নয়। বিএনপি ১৯৯৯ সালে শেখ হাসিনার বিপক্ষে বিক্ষোভ করেছে। আওয়ামী লীগও করেছে খালেদা জিয়ার বিপক্ষে । সেটা  ২০০২ সালে। তারপরে কোনো মন্ত্রীর বিপক্ষে আওয়ামী লীগ বিক্ষোভ করেনি।
বিদেশে এই কালচারটি ডেভলপ না করাই ভাল। ভবিষ্যতে আওয়ামী লীগ এই ধরনের বিক্ষোভ করতে চায় কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, '' বিএনপি যদি মুচলেকা দিতে রাজি হয় , তারা এটা আর করবে না। আমরাও আর করবো না। এটা আমরা বন্ধ করতে রাজি আছি। ''
বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে বর্ষিয়ান নেতা ও আওয়ামী লীগের অস্ট্রেলিয়া শাখার উপদেষ্টা গামা আব্দুল কাদির বলেন, বিরোধী দল বিক্ষোভ করতেই পারে। এটা তাদের অধিকার। স্বাভাবিকভাবেই তারা বর্তমান সরকারের কর্মকান্ডে খুশি না । তারা তো তাদের ক্ষোভ দেখাতেই পারে। তবে এটা না দেখানো ভাল ।
বিষয়টি নিয়ে অস্ট্রেলিয়া বিএনপির নেতা সোহেল ইকবাল মাহমুদ বলেন,  ''আমাদের দেশে বিএনপিকে অনুষ্ঠান করতে দেয়া হয়না। সকল কর্মকান্ডে বাধা দেয়া হয়। তারা হত্যা আর গুম চালিয়ে যাচ্ছে। এই অবস্থায় বিদেশে এদের প্রতিহত করা ছাড়া আমাদের কোনো উপায়ও নেই। তারা বন্ধ করতে চাইলে দেশে গণতান্ত্রিক আচরন করতে হবে। আমরাও চাইনা বিদেশের মাটিতে এ ধরনের কালচার ডেভলপ করুক। কিন্তু আমরা নিরুপায়। আমরা দেশে নির্যাতনের শিকার। তার প্রতিবাদ তো এখানে হবেই। ''

আরো খবর