শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৭ রবিউল আওয়াল, ১৪৪০ | ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


মঙ্গলবার, ০২ অক্টোবর ২০১৮ ০৪:০৮:১৯ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

সাড়ে ৯টার মধ্যে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে শিক্ষার্থীদের

আগামী ৫ অক্টোবর অনুষ্ঠেয় এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের সকাল সাড়ে ৯টার মধ্যে কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। পরীক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষার্থী ও কর্তব্য পালনকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মোবাইল ফোনসহ কোনো ধরনের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস ও ঘড়ি নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন না। প্রবেশপত্রে উল্লিখিত নির্দিষ্ট ধরনের কলম নিয়ে প্রবেশ করতে হবে। এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সোমবার সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং পরীক্ষা সংক্রান্ত ওভারসাইট কমিটির সঙ্গে বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এতে সভাপতিত্ব করেন। সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা সর্বোচ্চ কঠোর ও নি-িদ্র নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন করতে সব প্রস্তুতি ইতিমধ্যে নেয়া হয়েছে। তাই পরীক্ষা নিয়ে কোনো বিতর্ক সৃষ্টির সুযোগ এবারও থাকবে না। গত কয়েক বছর ধরে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার প্রক্রিয়ার স্বচ্ছতা নিয়ে সব মহলে যে প্রশংসা অর্জিত হয়েছে এবারের পরীক্ষায়ও সেই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। মন্ত্রী বলেন, জনগণের কাছে মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে দেশের মেডিকেল কলেজগুলোতে যেন প্রকৃত মেধাবীরাই ভর্তির সুযোগ পায়, তা নিশ্চিত করতে সরকার কোনো আপস করবে না। ভুয়া প্রশ্নপত্র ফাঁস বাণিজ্য বা গুজব প্রতিরোধে শিক্ষার্থী, অভিভাবক, নাগরিক সমাজ ও গণমাধ্যমকে সচেতন থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এ ক্ষেত্রে কেউ কোনো তথ্য পেলে তা সঙ্গে সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে জানিয়ে দেয়ার জন্য মন্ত্রী অনুরোধ করেন। শিক্ষার্থীদের সময়মতো পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে সহায়তা করার জন্য ট্রাফিক পুলিশের প্রতি মন্ত্রী অনুরোধ জানান। সভায় উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবারকল্যাণ বিভাগের সচিব জিএম সালেহ উদ্দিন, বিএসএমএমইউর উপাচার্য অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়া, চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ইসমাইল খান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, অধ্যাপক মাহমুদ হাসান, বিএমডিসির পরিচালক অধ্যাপক সহিদুল্লা, বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, মহাসচিব অধ্যাপক এহতেশামুল হক চৌধুরী, স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ইকবাল আর্সলান, মহাসচিব অধ্যাপক এমএ আজিজ, ওভারসাইট কমিটির সদস্য কলামিস্ট সাংবাদিক সৈয়দ আবুল মকসুদ, আমাদের অর্থনীতির সম্পাদক নাইমুল ইসলাম খান, প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক আবদুল কাইয়ুম, গাজী মিডিয়ার চিফ এডিটর ইশতিয়াক রেজাসহ ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার, মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য অধিদফতর এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।





আরো খবর