রোববার, ৩০ এপ্রিল ২০১৭, ১৭ বৈশাখ ১৪২৪, ৩ সাবান, ১৪৩৮ | ১২:৫০ অপরাহ্ন (GMT)
ব্রেকিং নিউজ :
X
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০১৭ ০৪:৪১:৩২ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

‘শিক্ষানীতি থেকে ইসলাম বাদ দেয়ার কারণে জঙ্গির সংখ্যা বাড়ছে’

 

 

টাঙ্গাইল: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমীর মুফতি ফয়জুল করীম বলেছেন, প্রকৃত ইসলামী শিক্ষার অভাবেই মানুষ জঙ্গিবাদের মত পথ বেছে নিতে দ্বিধা করে না। সরকার সিলেবাসে হাত দেয়ার কারণে এবং শিক্ষানীতি থেকে ইসলাম বাদ দেয়ার কারণে সর্বত্র মানুষ বিপথগাদী হচ্ছে। আর সে কারণেই দেশে জঙ্গির সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে।

 

বৃহস্পতিবার টাঙ্গাইলের ঘাটাইলের কদমতলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত বিশাল ইসলামী মহাসম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

 

তিনি বলেন, প্রকৃত ইসলামী শিক্ষার অভাবেই মানুষ জঙ্গিবাদের মত পথ বেছে নিতে দ্বিধা করে না। সরকার সিলেবাসে হাত দেয়ার কারণে এবং শিক্ষানীতি থেকে ইসলাম বাদ দেয়ার কারণে সর্বত্র মানুষ বিপথগাদী হচ্ছে। আর সে কারণেই দেশে জঙ্গির সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলেছে।

 

 

ফয়জুল করীম বলেন, এ থেকে বাঁচতে হলে শিক্ষানীতি সংশোধন করতে হবে, শিক্ষাআইন ২০১৬ বাতিল করতে হবে এবং সিলেবাস থেকে ইসলামবিরোধী সকল গল্প-কবিতা বাদ দিতে হবে। সাথে সাথে সিলেবাসে ইসলামি শিক্ষা সংযোজন করতে হবে।

 

মুফতি ফয়জুল করীম বলেন, শিক্ষার সর্বস্তরে ইসলামী শিক্ষা বাধ্যতামূলক করলে মানুষ বিপথগামী হতো না। ইসলামী শিক্ষা না থাকায় সর্বত্র মানুষ বিপথগামী হচ্ছে। ইসলামী শিক্ষার অভাবে মানুষ ক্রমেই নৈতিকতাহীন হয়ে পড়ছে। পারিবারিকভাবেও এর প্রভাবে মানুষ দিশেহারা।

 

তিনি আরো বলেন, অবিলম্বে হাই কোর্টের সামনে থেকে মূর্তি সরাতে হবে। মূর্তির বিরুদ্ধে গড়ে উঠা আন্দোলনের জনমত সরকারের বিরুদ্ধে চলে যেতে পারে। তাই মূর্তি অপসারণ করলে সরকারেরই কল্যাণ হবে। মূর্তি না সরালে যে কোন মূল্যে ২১ এপ্রিল রাজধানী ঢাকায় জাতীয় মহাসমাবেশ সফলের মাধ্যমে ঈমানদার জনতা মূর্তি ভেঙ্গে দিতে বাধ্য হবে।

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর