শনিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৩, ২৮ জমাদিউল আওয়াল, ১৪৩৮ | ০৯:১৪ অপরাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
শুক্রবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ ০৭:৩৭:১৫ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

আমার দেশ প্রেস খুলে দেয়ার দাবিতে মানবন্ধন : গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনতে সব মিডিয়াকর্মী ঐক্যবদ্ধ হোন : মাহমুদুর রহমান

 

 

***আমার দেশ প্রেস খুলে দেয়ার দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে শুক্রবার সকালে আয়োজিত মানববন্ধনে সম্পাদক মাহমুদুর রহমান বক্তৃতা করেন*** দৈনিক আমার দেশ ছাপা খানা খুলে দেয়ার দাবীতে ‘আমার দেশ পড়তে চাই, দেশের খবর জানতে চাই’ শ্লোগান নিয়ে আজ শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবেরসামনে এক বিশাল মানবন্ধন হয়। মানবন্ধনে আমার দেশ এর কারা নির্যাতিত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, এবং লেখার স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনার জন্য দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে সকল মিডিয়া কর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করার আহŸানজানিয়েছেন। মানবন্ধনে সূচনা বক্তব্য দেন পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ। আমার দেশ এর স্পোর্টস এডিটর ও জাতীয় প্রেস ক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক ইলিয়াস খানের সঞ্চালনায় মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিএফইউজের সভাপতি শওকত মাহমুদ, সাবেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী, ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, ইঞ্জিনিয়ারদের নেতা ইঞ্জিনিয়ার রিয়াজুল ইসলাম রিজু, বিএফইউজের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মোদাব্বের হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, আমার দেশ বার্তা সম্পাদক জাহেদ চৌধুরী, কৃষিবিদ নেতা শামীমুর রহমান শামীম প্রমুখ। 16790586_1317053098383540_731685475_nমানবন্ধনে মাহমুদুর রহমান বলেন, এ সরকার দৈনিক আমার দেশ বন্ধ করেই ক্ষান্ত হয়নি, সবার লেখার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। ২০০১-২০০৬ পর্যন্ত সাংবাদিকসমাজ ও মিডিয়া যে তীব্র ভাষায় সমালোচনা করতে পেরেছেন, আজ তারছিটেফোঁটাও করা সম্ভব হচ্ছে না। অনেক মিডিয়া বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। সম্পাদক ও সংবাদ কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়রানী এমনকি অনেক সাংবাদিক হত্যার শিকার হয়েছে। তিনি জনগনকে তাদের পছন্দের পত্রিকা আমার দেশ খুলে দেয়ার জন্য সোচ্চার হওয়ার আহŸান জানান। মাহমুদুর রহমান বলেন, আমি প্রথম দফায় এক বছর এবং দ্বিতীয় দফায় একটানা প্রায় চার বছর জেল খেটে জামিনে মুক্ত হয়েছি। জেল-জুলুম নির্যাতনে আমি ভয় পাই না।গণমাধ্যমের স্বাধীনতা, মানুষের অধিকার, দেশের স্বার্থ এবংগণতন্ত্র মানবাধিকারের পক্ষে আমি আছি এবং থাকব। ফ্যাসিবাদের কাছেকখনও মাথা নত করবো না, লড়াইয়ের ময়দান ছাড়ব না। ফরহাদ মজহার বলেন, লড়াই সংগ্রামের মধ্য দিয়ে আজ মাহমুদুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে রাজপথে দাঁড়িয়েছি। নাগরিক ও মানবাধিকার এবং গণমাধ্যমের স্বাধীনতার জন্য সব মিডিয়াকে বৃহত্তর মৈত্রী গড়ে তুলতে হবে। ফ্যাসিবাদমুক্ত হবে। আমার দেশ পড়তে চাই, ফ্যাসিবাদের ক্ষমা নেই। শওকত মাহমুদ বলেন, আমার দেশ এর অপরাধ পত্রিকাটি দেশের স্বার্থ, গণতন্ত্র ওমানবাধিকারের পক্ষে এবং ফ্যাসিবাদী সরকারের অপকর্মের বিরুদ্ধে বস্তুনিষ্ঠসংবাদ প্রকাশ করেছে। তিনি গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ফিরিয়েআনার জন্য বিবেকবান জনগনকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহŸান জানান এবং অবিলম্বে আমার দেশ প্রেস খুলে দেয়ার দাবী জানান। রুহুল আমিন গাজী বলেন, দেশের মানুষ আজ আমার দেশ পড়া থেকে বঞ্চিত। তারা আমার দেশ পড়তে চায় এবং দেশের প্রকৃত খবর জানতে চায়। তাই অবিলম্বে সরকারকে আমার দেশ প্রেস খুলে দেয়ার দাবী জানায় এবং একই সঙ্গে মাহমুদুর রহমান সহ তার শতশত সহকর্মীকে পেশায় ফিরে যাওয়ারসুযোগ দেয়ার আহŸান জানান। জাহাঙ্গীর আলম প্রধান দৈনিক আমার দেশ সহ সব বন্ধ মিডিয়া খুলে দেয়ারদাবি জানিয়ে বলেন, অন্যথায় সাংবাদিক সমাজ বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তুলবে।  

আরো খবর