শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১২ ফাল্গুন ১৪২৪, ৮ জমাদিউস সানি, ১৪৩৯ | ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ০৪:০৬:৩৯ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

শেখ হাসিনার মুক্তি চেয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন খালেদা জিয়া!

সাড়ে ১০ বছর আগে তৎকালীন ‘সেনা-সমর্থিত’ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে একটি চাঁদাবাজির মামলায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। ওই সময়ে শেখ হাসিনার মুক্তি দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। শেখ হাসিনাকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিশিষ্ট নাগরিক উল্লেখ করে তাকে মুক্তি দিয়ে অভিযোগের আইনি প্রক্রিয়ার সমাধান করার আহ্বান জানিয়েছিলেন খালেদা জিয়া। সাড়ে ১০ বছর পর সেই সেনা সমর্থিত সরকারের আমলে দায়েরকৃত দুর্নীতি মামলাতেই সাজাপ্রাপ্ত হয়ে জেলে যেতে হয়েছে খালেদা জিয়াকে। আর এই সময়ে সরকার প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন শেখ হাসিনা। ২০০৬ সালে নির্বাচন ও ক্ষমতায় যাওয়া নিয়ে আওয়ামী লীগ বিএনপির দ্বন্দ্বে জরুরি অবস্থা জারির মধ্য দিয়ে ক্ষমতায় আসে সেনা সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার। এরপর অনেক রাজনৈতিক নেতা কর্মীদের গ্রেফতার করা হয় বিভিন্ন মামলায়। তখন গ্রেফতার হয়েছিল আওয়ামী লীগ বিএনপির দুই শীর্ষ নেত্রী শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়াও। ২০০৭ সালের ১৬ জুলাই ভোররাতে ধানম-ির সুধা সদনের বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয় শেখ হাসিনাকে। প্রায় ৩ কোটি টাকার একটি চাঁদাবাজির মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এই গ্রেফতারের একদিন পরই তার মুক্তি চেয়ে গণমাধ্যমে বিবৃতি দেন খালেদা জিয়া। সেই বিবৃতি গণমাধ্যমে প্রকাশও হয়। খালেদা তাতে বলেন, ‘শেখ হাসিনাকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়া উচিত। শেখ হাসিনাকে মুক্ত রেখে আইন পরিচালনা করা হলে পারস্পরিক অবিশ্বাস, সন্দেহ, সামাজিক উত্তেজনা এবং রাজনৈতিক আশঙ্কা কমে আসবে।’ শেখ হাসিনাকে যেভাবে গ্রেফতার করে আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে তাতে খালেদা জিয়া দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘শেখ হাসিনা একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রী, জাতীয় নেতার কন্যা এবং দেশের সম্মানিত নাগরিক।’ তাকে গ্রেফতার করায় বিবেকমান নাগরিকেরা আহত হয়েছেন। এর ফলে দেশে বিদেশেও সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে উল্লেখ করেন খালেদা জিয়া। শেখ হাসিনাকে গ্রেফতারের আড়াই মাস পর ২০০৭ সালের ৩ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়াকে গ্রেফতার করা হয়েছিল অন্য আরেকটি মামলায়। খালেদা জিয়া ও শেখ হাসিনা দুই নেত্রীর বিরুদ্ধেই বিভিন্ন অভিযোগে একাধিক মামলা দায়ের হয়। সেই সব মামলার ভেতরই একটি মামলা ছিল জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা। ২০০৮ সালের ৩ জুলাই দুর্নীতি দমন কমিশন মামলাটি দায়ের করে রমনা থানায়। ওই মামলার রায়ে ৫ বছর কারাদণ্ড পেয়ে বর্তমানে জেলখানায় আছেন খালেদা জিয়া।





আরো খবর