সোমবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৮, ৯ মাঘ ১৪২৪, ৫ জমাদিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


রোববার, ১৪ জানুয়ারী ২০১৮ ০৬:১৯:৫৪ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

মুকুটের ভারে ঘাড় ভেঙে যাওয়ার ভয় রাণী এলিজাবেথের

১৯৫২ সালের ফেব্রুয়ারিতে বাবা ষষ্ঠ জর্জের মৃত্যুর পর মাত্র ২৭ বছর বয়সে সিংহাসনে বসেছিলেন রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথ। এরপর কেটে গেছে ৬৬ বছর। রাণি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এখন বিশ্বের সবচেয়ে বেশি সময় ধরে টিকে থাকা ব্রিটিশ রাজত্বের শাসনকর্তা। আর থাই রাজা ভূমিবল আদুলিয়াদেজের মৃত্যুর পর রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথই বিশ্বে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে রাজত্ব পরিচালনা করা জীবিত ব্যক্তি। সমপ্রতি রাণী এলিজাবেথকে নিয়ে ঘণ্টাব্যাপী বিশেষ এক ডকুমেন্টারি তৈরি করেছে বিবিসি। ডকুমেন্টারির বিরল এক সাক্ষাত্কারে রাজ্যাভিষেকের সেই স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে রাণী এলিজাবেথ বলেছেন, মুকুটের ভারে ঘাড় ভেঙে যাওয়ার ভয় পাচ্ছিলেন তিনি। তিনি বলেন, অভিষেকে মুকুট পরানোর পর মনে হচ্ছিল এটা এতো ভারি, এই বুঝি ঘাড় ভেঙে গেল। মুকুটটিতে বসানো হীরা এবং মহামূল্যবান সব রত্নের কারণে এটি খুবই ভারি মনে হচ্ছিল। সেই অভিষেকের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে রাণী এলিজাবেথ বলেন, মুকুটটি ভারি হওয়ার কারণে আমি মাথা নিচু করে ভাষণটিও পড়তে পারছিলাম না। এ কারণে ভাষণের লিখিত কপিটি উঁচু করে ধরে পড়তে বাধ্য হয়েছিলাম। মনে হচ্ছিল, মাথা নিচু করে পড়তে গেলে ঘাড় ভেঙে মুকুট নিচে পড়ে যাবে। সুতরাং বলা যায়, রাজ্যাভিষেকের জন্য মুকুটটি খুবই জরুরি হলেও মুকুটেরও কিছু মন্দ দিক রয়েছে। মজার বিষয় হলো ‘দ্য ইম্পেরিয়াল স্টেট ক্রাউন’ নামের সেই মুকুটটি গত ৬৬ বছর ধরে পরে আসছেন রাণি। তবে তা শুধু নির্দিষ্ট কিছু অনুষ্ঠানে। সূত্র: বিবিসি




আরো খবর