রোববার, ২১ জানুয়ারী ২০১৮, ৮ মাঘ ১৪২৪, ৪ জমাদিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ০২:৪০ অপরাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


শুক্রবার, ১২ জানুয়ারী ২০১৮ ০৫:০২:০২ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

আমবয়ানের মধ্য দিয়ে ইজতেমা শুরু, এক মুসল্লির মৃত্যু

ঢাকা: আমবয়ানের মধ্য দিয়ে গাজীপুরের টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা প্রথম পর্ব শুরু হয়েছে। টঙ্গীর ইজতেমাস্থল এখন মুসল্লিদের আগমনে মুখর হয়ে উঠছে। শুক্রবার বাদ ফজর থেকে শুরু হয় এবারের বিশ্ব ইজতেমা। বয়ান করছেন সৌদি আরব তাবলিগের মুরব্বি শেখ ওমর খতিব। বয়ান তরজমা করছেন বাংলাদেশের মো. আবদুল মতিন। এদিকে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ইজতেমা ময়দানে আজিজুল হক (৬০) নামে এক মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি মাগুরার শালিখা উপজেলার হবিষপুর গ্রামে। ইজতেমা সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে আজিজুল হক ২৯নং খিত্তায় পেটের ব্যথায় অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে দ্রুত টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে নিয়ে গেলে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয়। তাবলিগ জামাত আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে আজ মূলবয়ান মঞ্চ থেকে জ্যেষ্ঠ মুরুব্বীরা আগত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ভাষায় আল্লাহ ও তার রাসূলের নির্দেশিত ইসলামী বিধানের ওপর দিক নির্দেশনামূলক গুরুত্বপূর্ণ বয়ান করছেন। বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ধাপে ২৮টি খিত্তা এবং দ্বিতীয় ধাপে ২৯টি খিত্তা স্থাপন করা হয়েছে। প্রথম পর্বে ১৬ জেলা এবং দ্বিতীয় পর্বে ১৬ জেলার মুসল্লিরা অংশ নেবে। এবারের ইজতেমায় বিশ্বের শতাধিক দেশের ১০ হাজারের বেশি মেহমান অংশগ্রহণ করেছেন বলে আশা করা হচ্ছে। এবারের ময়দানে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব আমির মাওলানা সাদ কান্ধলভি যাচ্ছেন না। তাকে ছাড়াই ইজতেমা শুরু হয়েছে। বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সাদের যোগ দেওয়া-না দেওয়া নিয়ে যে অচল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল, তার অবসান করেছেন মাওলানা সাদ নিজেই। এবারের বিশ্ব ইজতেমায় মাওলানা সাদসহ দুই পক্ষের প্রধান দুই মুরব্বি যোগ দিচ্ছেন না। তবে তাদের প্রতিনিধিরা ইজতেমায় অংশ নেবেন। টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমা সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে মাওলানা সাদ এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে কাকরাইল মসজিদ ও ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। কনকনে শীত ও কুয়াশা উপেক্ষা করে গত বৃহস্পতিবার থেকেই বাস-ট্রাক, কার-পিকআপসহ বিভিন্ন যানবাহনে করে দলে দলে মুসল্লিরা টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমাস্থলে আসতে থাকেন। তারা কাঁধে-পিঠে প্রয়োজনীয় মালামাল নিয়ে ইজতেমাস্থলে এসে নিজ জেলার খিত্তায় অবস্থান নেন। প্রথম দফায় যেসব জেলার মুসল্লি: এবারের বিশ্ব ইজতেমায় প্রথম দফায় ১৬টি জেলার মুসল্লিরা অংশগ্রহণ করবে। প্রথমবারে অংশ নেওয়া জেলা ও খিত্তা নম্বরগুলো হলো ঢাকা জেলার (খিত্তা নম্বর-১, ২, ৩, ৪, ৫, ৬, ৭, ৮, ১৬, ১৮, ২০, ২১), পঞ্চগড় (খিত্তা নম্বর-৯), নীলফামারী (খিত্তা নম্বর-১০), শেরপুর (খিত্তা নম্বর-১১), নারায়ণগঞ্জ (খিত্তা নম্বর-১২, ১৯), গাইবান্ধা (খিত্তা নম্বর-১৩), নাটোর (খিত্তা নম্বর-১৪), মাদারীপুর (খিত্তা নম্বর-১৫), নড়াইল (খিত্তা নম্বর-১৭), লক্ষ্মীপুর (খিত্তা নম্বর-২২, ২৩), ঝালকাঠি (খিত্তা নম্বর-২৪), ভোলা (খিত্তা নম্বর-২৫, ২৬), মাগুড়া (খিত্তা নম্বর-২৭) ও পটুয়াখালী (খিত্তা নম্বর-২৮) জেলার মুসল্লিরা অবস্থান করছে। মুসল্লিদের সুবিধার জন্য ময়দানের উত্তর দিক থেকে ক্রমানুসারে দক্ষিণ দিকে খিত্তার নম্বর বসানো হয়েছে। এদিকে ইজতেমার নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে নেয়া হয়েছে পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আগামী ১৪ জানুয়ারি রবিবার আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে ইজতেমার প্রথম পর্ব। ইজতেমার সার্বিক কার্যক্রম মনিটরিং করতে গাজীপুর সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ও ভিডিপির পাঁচটি কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে




আরো খবর