রোববার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩ পৌষ ১৪২৪, ২৮ রবিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


বুধবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৬:৪৩:০৭ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

স্বর্ণ পাচারের আন্তর্জাতিক রুট হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে বেনাপোলের প্রধান ফটক

বেনাপোল: যশোর জেলার শার্শা উপজেলার বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে বাংলাদেশ থেকে স্বর্ণ পাচারকারিরা স্বর্ণ পাচারে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। অপরদিকে ভারত থেকে আসছে ফেনসিডিল গাঁজা হোরোইনসহ বিভিন্ন মাদক দ্রব্য। আন্তর্জাতিক স্বর্ণ ব্যবসায়িরা বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম সীমান্তের শার্শা উপজেলাকে নিরাপদ বলে মনে করছে বলে একাধিক সূত্রে প্রকাশ। সীমান্তে বিজিবি সার্বক্ষনিক টহলরত থাকা সত্বেও এদেশে প্রবেশ করছে হাজার হাজার বোতল ফেনসিডিল সহ বিভিন্ন ধরণের মাদকদ্রব্য। মাঝে মধ্যে বিজিবির অভিযানে সামান্য কিছু গাঁজা ফেনসিডিল ধরা পড়লেও এর বড় অংশ চলে যাচ্ছে দেশের অভ্যন্তরে। বিজিবি বসে বসে পাসপোর্ট যাত্রীদের হয়রানি করছে বিভিন্ন জায়গায় চেকপোষ্ট বসিয়ে। এরা বেনাপোল কাস্টমস থেকে মাত্র ৫০ গজের ভিতর চেকপোষ্ট বসিয়েছে। এ ছাড়া আমড়াখালি নামকস্থানে বেনাপোল রেল ষ্টেশনের পথে পথে একই পাসপোর্টযাত্রীকে বার বার ল্যাগেজ খুলে হয়রানি করছে। ঢাকার পাসপোর্টযাত্রী ফিরোজা বেগম জানান, তার ভারত থেকে আনীত পন্য বেনাপোল চেকপোষ্ট বিজিবি দেখে আটক করে ডিএম করার পর কিছু পন্য রেখে কিছু পণ্য দিয়ে দেয়। সম্প্রতি শার্শার বেনাপোল পোর্ট থানার দৌলতপুর গাতিপাড়া থেকে ২৭ মে মনিরুজ্জামান নামে এক স্বর্ণ পাচারকারিকে ২ কেজি ৩৮০ গ্রাম স্বর্ণসহ আটক করে বিজিবি। এর তিনদিন পর পুটখাীল সীমান্ত থেকে সোবহানের ছেলে মনিরুজ্জামান নামের আর একজন স্বর্ণ পাচারকারিকে ১ কেজি ২৪০ গ্রাম স্বর্ণসহ আটক করা হয়। ৫ জুলাই পুটখালি থেকে ১ কেজি ১০০ গ্রাম স্বর্ণসহ আটক হয় বাবুল নামের অপর এক স্বর্ণ পাচারকারিকে। ১১ জুলাই আবু সালেহ নামের এক পাসপোর্টযাত্রীকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পার হয়ে ভারত কাষ্টমসে গেলে ২০ পিছ স্বর্ণের বারসহ আটক হয়। ১২ই জুলাই মোঃ পারভেজ আলম নামের এক পাসপোর্টযাত্রীকে বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দারা ৭ পিছ স্বর্নের বার সহ আটক করে, ১৪ জুলাই বেনাপোল চেকপোষ্ট শুল্ক গোয়েন্দারা ইমিগ্রেশন এর গেটের ভিতর থেকে জালাল আহম্মেদ নামে এক পাসপোর্টযাত্রীকে ৫ পিছ স্বর্ণসহ আটক করে, ১৫ জুলাই রুখসানা নামে এক মহিলা পাসপোর্টযাত্রীকে পনে তিন কেজি স্বর্ণ সহ আটক করে শুল্ক গোয়েন্দারা, ১৭ ই জুলাই সেলিম নামে এক যুবককে ১ কেজি ২৫০ গ্রাম স্বর্ন সহ আটক করে শুল্ক গোয়েন্দারা ২৬ জুলাই আরিফুল নামে একজনকে ৪ পিছ স্বর্নের বার সহ আটক করে শুল্ক গোয়েন্দারা ।





আরো খবর