শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১২ ফাল্গুন ১৪২৪, ৮ জমাদিউস সানি, ১৪৩৯ | ০৪:১৩ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ০৬:১৬:৪৭ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

যৌন কেলেঙ্কারির দায় নিয়ে অক্সফামের উপপ্রধান নির্বাহীর পদত্যাগ

কর্মীদের যৌন কেলেঙ্কারির মুখে পদত্যাগ করেছেন ব্রিটেনের দাতব্য সংস্থা অক্সফামের উপপ্রধান নির্বাহী পেনি লরেন্স। এ ঘটনায় যথাযথ ব্যবস্থা নিতে নিজের ব্যর্থতার দায় স্বীকার করে সোমবার তাকে সরে দাঁড়াতে হয়েছে।–খবর বিবিসি অনলাইন। ২০১১ সালে ভূমিকম্প বিধ্বস্ত হাইতিতে ত্রাণ সহায়তা দেয়ার সময় অক্সফামের কর্মীদের বিরুদ্ধে যৌনকর্মী ভাড়া করার অভিযোগ ওঠে। ব্রিটেনের অন্যতম বৃহৎ এই দাতব্য সংস্থাটি সেই কেলেঙ্কারি ধামাচাপা দিয়েছিল। এ ঘটনার পূর্ণ দায় নিয়ে পেনি লরেন্স বলেন, তিনি খুবই লজ্জিত। এর আগে কেলেঙ্কারির ঘটনা স্বীকার করার পর সংস্থাটির কান্ট্রি ডিরেক্টরের পদ ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলেন রোনাল্ড ভন হওয়ারমেরিন (৬৮)।তিনি একটি ফরাসি দাতব্য সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তা হিসেবে বাংলাদেশেও চাকরি করে গেছেন। যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনা ফাঁস হওয়ার পর থেকে অর্থায়ন বাঁচাতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে অক্সফাম। মূলত সেই চেষ্টার অংশ হিসেবে তিনি নিজের পদ ছেড়ে দিয়েছেন। সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা তার সিদ্ধান্তে স্বাগত জানিয়েছেন। এক বিবৃতিতে লরেন্স বলেন, চাদ ও হাইতিতে কর্মীদের আচরণ নিয়ে যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে, তা গত কয়েক দিনে আমরা অবগত হয়েছি। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছি। তিনি বলেন, এটি এখন পরিষ্কার যে, চাদে কান্ট্রি ডিরেক্টর ও তার দলের সদস্যদের নিয়ে যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগগুলো উঠেছে তিনি হাইতিতে যাওয়ার আগেই। লরেন্স আরও বলেন, ওই সময় একজন প্রোগ্রাম ডিরেক্টর হিসাবে আমার তত্ত্বাবধানে ওই কাণ্ড ঘটায় আমি লজ্জ্বিত। আমি এর পূর্ণ দায় নিচ্ছি।





আরো খবর