শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ১২ ফাল্গুন ১৪২৪, ৮ জমাদিউস সানি, ১৪৩৯ | ০৪:২১ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ০৪:০৩:৫২ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

ইসরাইলের অবৈধ বসতি শান্তি প্রক্রিয়া জটিল করছে: ট্রাম্প

ইসরাইলের অবৈধ বসতি শান্তি প্রক্রিয়া জটিল করে তুলছে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইসরাইলকে বিষয়টি নিয়ে বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। ইসরাইলের একটি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাৎকারে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ইসরাইল-ফিলিস্তিনিদের কেউ শান্তি প্রতিষ্ঠায় প্রস্তুত বলে তিনি মনে করছেন না।-খবর বিবিসি। গত বছরের ৬ ডিসেম্বর জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি তেলআবিব থেকে দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেয়ারও নির্দেশ দেন। রোববার ইসরাইলের হাইয়ুম পত্রিকায় প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প এ মন্তব্য করেন। এক প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, এ মুহূর্তে ফিলিস্তিন শান্তি স্থাপনের পথে নেই। আর কেবল তারাই নয়, ইসরাইলের ব্যাপারেও আমার মনে হচ্ছে- তারা শান্তি স্থাপন করতে ইচ্ছুক নয়। সুতরাং আমাদের কেবলই অপেক্ষা করে যেতে হবে আর দেখতে হবে কী হয়। শান্তি পরিকল্পনায় ইসরাইলি বসতির বিষয়টি থাকবে কিনা- এ প্রশ্নের জবাবে ট্রাম্প বলেন, আমরা বসতি নিয়ে কথা বলব। বসতি স্থাপন এমন একটি বিষয়, যেটি সবসময়ই শান্তি প্রক্রিয়াকে জটিল করেছে এবং খুবই জটিল করে তুলছে। সুতরাং বিষয়টি নিয়ে ইসরাইলকে খুবই সতর্ক থাকতে হবে বলে আমি মনে করি। ট্রাম্প বলেন, আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই- জেরুজালেম ইসরাইলের রাজধানী। এখন দুই পক্ষ কোথায় সীমান্ত টানা হবে তা নিয়ে সমঝোতায় পৌঁছালে আমি সমর্থন দেব। তিনি বলেন, শান্তিচুক্তি সম্ভব করতে চাইলে উভয়পক্ষকেই লক্ষণীয় আপস করতে হবে বলে আমি মনে করি। ১৯৬৭ সালে যুদ্ধের পর ইসরাইল পুরো জেরুজালেমকে নিজেদের রাজধানী বলে দাবি করে আসছে। ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রের জন্য ফিলিস্তিন পূর্ব জেরুজালেমকে নিজেদের রাজধানী হিসেবে দেখতে চাচ্ছে। ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস বলেন, জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে বিতর্কিত সিদ্ধান্তের পর যুক্তরাষ্ট্রকে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে মানবেন না।





আরো খবর