বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, ২৯ জিলহাজ, ১৪৩৮ | ০৩:২৮ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
বৃহস্পতিবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ০৭:১৯:২৭ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

ভারতে ঠাঁই নেই রোহিঙ্গাদের, নাগরিকত্ব পাচ্ছে চাকমা-হাজংরা

মায়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেবে না ভারত, স্পষ্ট জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। নয়া দিল্লীর এই সিদ্ধান্তের কড়া নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ। পাল্টা জবাব দিয়ে নয়া দিল্লী জানিয়েছে, পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়ে রেখেছে ভারতই। কিন্তু এরই মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ভারতে পালিয়ে আসা চাকমা ও হাজংদের সরাসরি ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। সুপ্রীম কোর্টের নির্দেশেই তাদের নাগরিকত্ব দেওয়া হচ্ছে বলে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। সুপ্রীম কোর্ট ২০১৫ সালেই চাকমা ও হাজংদের নাগরিকত্ব দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল। কিন্তু অরুণাচল প্রদেশের সরকার এই রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন জানায়। তবে সুপ্রীম কোর্ট সে আবেদন খারিজ করে দেয়। আদালতের সেই রায়ের প্রায় দু’বছর পরে নির্দেশ রূপায়ণে উদ্যোগী হলো কেন্দ্র। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ বিষয়টি নিয়ে গতকাল বুধবার বৈঠক ডাকেন। বৈঠকে অরুণাচলের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু জানান, চাকমা ও হাজং জনগোষ্ঠীর প্রায় এক লাখ মানুষ অরুণাচলে রয়েছেন। তাদের নাগরিকত্ব দেয়া হলে অরুণাচলের জনবিন্যাস বদলে যাবে এবং অর্থনীতির উপর প্রভাব পড়বে। রাজ্যের মানুষ এতে খুশি হবেন না। রাজ্যজুড়ে অশান্তিও হতে পারে বলেও মুখ্যমন্ত্রী আশঙ্কা প্রকাশ করেন। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ কেন্দ্রকে মানতেই হবে। তাই আপাতত চাকমা ও হাজংদের নাগরিকত্ব দেওয়া হচ্ছে। তবে নাগরিকত্ব দিলেও তাদের সম্পত্তির অধিকার দেওয়া হবে না বলে স্থির করা হয়েছে।

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর