বুধবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৭, ৩ কার্তিক ১৪২৪, ২৭ মুহাররম, ১৪৩৯ | ০৬:৪১ অপরাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
বুধবার, ০৪ অক্টোবর ২০১৭ ০২:০৬:২৩ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

দলবেঁধে ধর্ষণের পর হত্যা: ৩ জনের ফাঁসি

নরসিংদী: নরসিংদীর শিবপুরে এক নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে তিনজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। বুধবার বিকালে নরসিংদীর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. গোলাম রাব্বানী এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, কিশোরগঞ্জের হোসেনপুর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত হোসেন আলী বেপারীর ছেলে সুলতান মিয়া ওরফে জামাই সুলতান (৩৫), একই উপজেলার মধ্যপানান গ্রামের আলী হোসেনের ছেলে শফিকুল ইসলাম শরীফ (৩২) ও নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার জয়নগর গ্রামের মৃত আ. মোতালিবের ছেলে ওসমান গণি (৩৪)। মামলার অন্য একটি ধারায় তিনজনকে সাত বছর করে কারাদণ্ড এবং সুলতানকে এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছরের কারাদণ্ড ও বাকি দুজনকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে স্পেশাল পিপি রীনা দেবনাথ জানান। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৫ সালের ২ ফেব্রুয়ারি কলাগাছিয়া নদীর তীর থেকে অজ্ঞাত পরিচয় এক নারীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় শিবপুর থানার এসআই মিজানুর ইসলাম বাদী হয়ে মামলা করেন। তদন্তের পর পুলিশ এই তিনজনকে গ্রেপ্তার করে। রীনা দেবনাথ বলেন, তাদের জবানবন্দিতে ওই নারী ময়মনসিংহের নান্দাইল থানার কিসমত আহমদাবাদ (চানপুর) গ্রামের মৃত বিল্লাল হোসেনের মেয়ে মাহমুদা আক্তার (২৮) বলে পরিচয় পাওয়া যায়। সেইসঙ্গে তাকে আসামিরা ধর্ষণের পর হত্যা করেছে বলেও স্বীকারোক্তিতে জানায়। তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ১৪ আগস্ট আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। মামলায় ২৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আদালত আসামিদের ফাঁসির রায় দিয়েছে বলে জানান তিনি।

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর