বৃহস্পতিবার, ৩০ মার্চ ২০১৭, ১৬ চৈত্র ১৪২৩, ২ রজব, ১৪৩৮ | ০৮:২৪ অপরাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
মঙ্গলবার, ১০ জানুয়ারী ২০১৭ ০৫:১৭:২৩ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

গ্যাস পাইপলাইন বসাতে ১৩,৩৫৬টি গাছ কাটা হবে

গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত তিন কিলোমিটার তিতাস গ্যাসের সঞ্চালন পাইপলাইন নির্মাণের জন্য ১৩ হাজার ৩৫৬টি গাছ কাটা হবে। এ জন্য গতকাল গাছ কাটা সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। গতকাল সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম প্রেস ব্রিফিংয়ে এ অনুমোদনের কথা জানিয়ে বলেন, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের শ্রীপুর থেকে জয়দেবপুর পর্যন্ত সঞ্চালন পাইপলাইন নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য বন বিভাগের প্রাকৃতিক ও সৃজিত বনের বৃক্ষ কর্তন ও অপসারণের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সঞ্চালন লাইনের দৈর্ঘ্য ৩ কিলোমিটার জানিয়ে তিনি বলেন, সঞ্চালন লাইনে থাকা মোট গাছের সংখ্যা ১৩ হাজার ৩৫৬টি। এরমধ্যে বিক্রয়যোগ্য গাছ হলো ৪ হাজার ১১টি এবং চারাগাছ হলো ৯ হাজার ৩৪৫টি। লাইন নেয়ার জন্য এ গাছগুলো অপসারণ বা কর্তন করা দরকার। শফিউল আলম বলেন, যেহেতু একটি সিদ্ধান্ত আছে এভাবে গাছ কাটতে হলে মন্ত্রিসভার অনুমোদন লাগবে এজন্য মন্ত্রিসভা অনুমোদন দিয়েছে। যেহেতু ২০২২ সাল পর্যন্ত গাছ কাটার (সংরক্ষিত ও প্রাকৃতিক বনাঞ্চলের) ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এ জন্য মন্ত্রিসভা জাতীয় স্বার্থে ১৩ হাজার ৩৫৬টি গাছ কর্তনের অনুমতি দিয়েছে। শফিউল আলম বলেন, এটার জন্য পরিপূরক সিদ্ধান্ত হলো, যেখানে যেখানে সুযোগ হয় এর দ্বিগুণ গাছ লাগিয়ে এটার সাপ্লিমেন্ট করতে হবে। তিতাস গ্যাস কোম্পানি এ গাছগুলো লাগাবে। পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় মন্ত্রিসভা  বৈঠকে এ প্রস্তাবটি উপস্থাপন করে।

 
 

[X]CLOSE

আরো খবর