বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ ২০১৭, ৯ চৈত্র ১৪২৩, ২৪ জমাদিউস সানি, ১৪৩৮ | ০৪:২৫ অপরাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
রোববার, ১২ মার্চ ২০১৭ ০৪:১৬:০৭ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

সাভারে স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ

 

 

সাভার: সাভারে অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে অস্ত্র ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে চার বখাটে।

 

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সাভার সদর ইউনিয়নের মিটন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় রবিবার বিকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

 

এলকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত চার বখাটে হলো- সিরাজের ছেলে আনোয়ার, সুমনের ছেলে সুজন, আয়নালের ছেলে রনি ও দুখা মিয়ার ছেলে সাইদুল। 

 

 

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গণধর্ষণে মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়েছে ওই ছাত্রী। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো দরকার। কিন্তু নিরাপত্তার কারণে তার চিকিৎসা নিয়েও শংকা দেখা দিয়েছে।

 

স্থানীয়দের অভিযোগ, পুলিশের সামনে আসামিরা ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ এই ঘটনায় কাউকে আটক করেনি। ছাত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোরও কোনো উদ্যাগ নেয়নি পুলিশ।

 

স্কুলছাত্রীর বাবা জানান, তার মেয়ে স্থানীয় একটি স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। বৃহস্পতিবার রাতে পাশের বিয়ে বাড়িতে যায় সে। অনুষ্ঠান শেষে রাত ১২টার দিকে ফেরার সময় একই গ্রামের চার বখাটে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তার মেয়েকে তুলে নিয়ে যায়। পাশের একটি জঙ্গলে নিয়ে পাশবিক নির্যাতনের পর পালিয়ে যায় তারা।

 

অনেক খোঁজাখুঁজির পর রবিবার ভোরে তার গোঙানির শব্দ পেয়ে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলে তিনি জানান।

 

স্কুলছাত্রীর বাবা বলেন, ধর্ষণকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয় ইউপি সদস্য শুক্কুর আলী ঘটনাটির বিচারের আশ্বাস দেন এবং মামালা করেতে নিষেধ করেন। এছাড়া এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ করলে তাদের গ্রামছাড়া করার হুমকিও দেয় ধর্ষণকারীরা ও তাদের পরিবারের সদস্যরা।

 

সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মিজান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে ধর্ষিতার পরিবার অভিযোগ দিলে সব ধরনের আইনি সহযোগিতা করা হবে।

 

[X]CLOSE

আরো খবর