রোববার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ৩ পৌষ ১৪২৪, ২৮ রবিউল আওয়াল, ১৪৩৯ | ১২:২৮ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি


সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ০৩:৫৭:২১ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

শিশু ধর্ষণের সাজা ফাঁসি, ভারতে আইন পাস

শিশু ধর্ষণের বিরুদ্ধে নতুন একটি আইন পাস করেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশ। সোমবার মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় পাস হল ঐতিহাসিক এই বিল। যাতে বলা হয়েছে ১২ বছর বা তার থেকে কম বয়সী মেয়েদের ধর্ষণ করলে ফাঁসির সাজা দেওয়া হবে অপরাধীকে। আগেই মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের মন্ত্রিসভায় অনুমোদন মিলেছিল বিলটির। সোমবার সেটি বিধানসভাতেও পাস হয়ে যায়। রাষ্ট্রপতির অনুমোদন মিললেই বিলটিকে আইনে পরিণত করা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ১২ বছর বা তার কমবয়সী মেয়েদের ধর্ষণে ফাঁসি বা যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। এবং এই একটি বয়সী মেয়েদের গণধর্ষণের সাজা হবে ২০ বছরের কারাদণ্ড। শুধু ধর্ষণই নয়, মেয়েদের উত্যক্ত করা, ধাওয়া করা এমনকী বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের জন্যও কড়া সাজার বিধান দেওয়া হয়েছে বিলে। বিধানসভায় বিলটি পাস হওয়ার পর মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান বলেন, যারা ১২ বছর বা তার চেয়ে কম বয়সী মেয়েদের ধর্ষণ করে, তারা মানুষ নয় দৈত্য। তাদের বেঁচে থাকার কোনও অধিকার নেই। একাধিকবার মেয়েদের উত্যক্ত করার অভিযোগে জামিন অযোগ্য ধারায় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হবে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডের পর এখনও পর্যন্ত কোনও কড়া আইন তৈরি হয়নি দেশে। ঘটনায় দোষীদের ফাঁসির সাজা শোনানো হলেও সেটি এখনও পর্যন্ত কার্যকর করা হয়নি। দেশে একের পর এক ধর্ষণ, গণধর্ষণের ঘটনা বেড়েই চলেছে। এই পাশবিক আচরণ থেকে রেহাই পাচ্ছেনা শিশুরাও। এসব দিক বিবেচনা করেই মধ্যপ্রদেশ সরকার নতুন এ আইনটি পাস করেছে।





আরো খবর