বুধবার, ১৬ আগস্ট ২০১৭, ১ ভাদ্র ১৪২৪, ২৩ জিলকদ, ১৪৩৮ | ১১:৪১ অপরাহ্ন (GMT)
ব্রেকিং নিউজ :
X
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
শনিবার, ০৫ আগস্ট ২০১৭ ০৫:০৪:২৭ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

মাদারীপুরে কলেজছাত্রীকে প্রেমিকসহ বন্ধুরা মিলে গণধর্ষণ

মাদারীপুর: মাদারীপুরের কালকিনিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চেতনানাশক খাইয়ে এক কলেজছাত্রীকে প্রেমিকসহ বন্ধুরা মিলে গণধর্ষণ করেছে। ওই ছাত্রীকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষিত ছাত্রীর বাড়ি গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর এলাকায়। এ ঘটনায় প্রধান ধর্ষকের বাবা-মাকে আটক করেছে পুলিশ। ধর্ষিতার পরিবার ও পুলিশ জানিয়েছে, গৌরনদী সরকারি কলেজের এইচএসসির প্রথম বর্ষের ছাত্রীর সঙ্গে খাঞ্জাপুর গ্রামের রাজ্জাক আকনের ছেলে রিফাত আকনের দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। এর সূত্র ধরে রিফাত বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ওই ছাত্রীকে কালকিনি উপজেলার কাজীবাকাই এলাকার মাইজপাড়া গ্রামের একটি নির্জন বাগানে বেড়াতে নিয়ে যায়। এ সময় তাকে চেতনানাশক খাইয়ে অজ্ঞান করে রিফাত আকনসহ তার ৪/৫ বন্ধু মিলে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে। এতে ওই ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে ধর্ষক রিফাত আকন কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে ভর্তি করে পালিয়ে যায়। পরে ধর্ষক রিফাত আকনের বাবা রাজ্জাক আকন ও তার মা রেহেনা বেগম ঘটনা জানতে হাসপাতালে আসলে কালকিনি থানা পুলিশ তাদেরকে আটক করে। ধর্ষকের বাবা রাজ্জাক আকন বলেন, ঘটনা আমার ছেলেসহ তার বন্ধুবান্ধব ঘটিয়েছে। এ ব্যাপারে কালকিনি থানা পুুলিশের উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. শাহআলম বলেন, কলেজছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় মূল ধর্ষক রিফাত আকনকে না পেয়ে তার বাবা-মাকে আটক করেছি। তবে মূল অভিযুক্তদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর