সোমবার, ২১ আগস্ট ২০১৭, ৬ ভাদ্র ১৪২৪, ২৮ জিলকদ, ১৪৩৮ | ১০:০১ পূর্বাহ্ন (GMT)
ব্রেকিং নিউজ :
X
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
রোববার, ১১ জুন ২০১৭ ১২:৪৫:৩১ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

স্বামীকে অপহরণ: মুক্তিপণ না পেয়ে স্ত্রীকে গণধর্ষণ

গাজীপুর: গাজীপুরের কালিয়াকৈরে মুক্তিপণের দাবিতে এক রংমিস্ত্রিকে অপহরণ করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে মুক্তিপণের টাকা না দেওয়ায় অপহৃত ওই রংমিস্ত্রির স্ত্রীকে গণধর্ষণ করেছে অপহরণকারীরা। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ শনিবার চারজনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার হরিণহাটি এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে ডালিম হোসেন (২৫), তার ভাই রাজীব হোসেন (২২), একই উপজেলার চন্দ্রা পল্লীবিদ্যুৎ দীঘিরপাড়া এলাকার মুক্তি দেওয়ানের ছেলে রবিন দেওয়ান (২৩) এবং একই এলাকার আ. জলিলের ছেলে রিপন হোসেন (২৪)। কালিয়াকৈর থানার এসআই মো. মোশারফ হোসেন তুহিন এবং অপহরণের শিকার রংমিস্ত্রি জানান, গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার হরিণহাটি এলাকার রবিন দেওয়ান তার বাড়িতে রং করার কথা বলে শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে স্থানীয় রংমিস্ত্রিকে কৌশলে অপহরণ করে বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে রবিন ও রাজীবসহ অপহরণকারীরা হাত-পা বেঁধে অপহৃত ওই রংমিস্ত্রিকে এলোপাতাড়ি মারধর করে এবং তার পরিবারের কাছে এক লাখ টাকা দাবি করে। অপহৃতের দরিদ্র পরিবার মুক্তিপণের টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে অপহরণকারীরা ক্ষুব্ধ হয়। একপর্যায়ে রাতে অপহৃত ওই রংমিস্ত্রির স্ত্রীকেও কৌশলে রবিনের বাড়িতে ডেকে নিয়ে মারধর করে অপহরণকারীরা। এ সময় মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে অপহরণকারীরা তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে গুরুতর অবস্থায় হাত-পা ও চোখ বেঁধে তাদেরকে আটকে রাখে অপহরণকারীরা। খবর পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ অপহৃত রংমিস্ত্রি ও গণধর্ষণের শিকার তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে। এ সময় এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় মুক্তিপণের উদ্দেশ্যে অপহরণ ও গণধর্ষণের অভিযোগে নয়জনকে আসামি করে অপহরণের শিকার রংমিস্ত্রি বাদী হয়ে গতকাল কালিয়াকৈর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। গতকাল দুপুরে গ্রেফতারকৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। গণধর্ষণের শিকার ওই নারী স্থানীয় এক গার্মেন্টের কর্মী। কালিয়াকৈর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ জানান, মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণ এবং গণধর্ষণের অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধর্ষিতাকে পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর