শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০১৭, ৫ কার্তিক ১৪২৪, ২৯ মুহাররম, ১৪৩৯ | ০৪:১৭ অপরাহ্ন (GMT)
ব্রেকিং নিউজ :
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
বুধবার, ০৯ আগস্ট ২০১৭ ০২:৪৩:১৯ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

শাকিবকে নিয়ে এ টি এম শামসুজ্জামান যা বললেন

শাকিব খানকে নিয়ে চলচ্চিত্রপাড়াতেই দুটি ভাগ। কেউ তাঁর পক্ষে, কেউ বিপক্ষে। কেউ প্রশংসা করছেন তো কেউ একরকম আন্দোলনেই নেমে পড়ছেন রাস্তায়। কিংবদন্তি অভিনেতাদের কেউ প্রশংসা করছেন, আবার এঁদেরই কেউ কেউ তীব্র সমালোচনা করছেন। এই প্রেক্ষাপটে শাকিব বিষয়ে কথা বললেন বর্ষীয়ান অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান। একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে তিনি বললেন, ‘আমাদের শাকিব যখন পশ্চিমবঙ্গে গিয়ে একটা জায়গা দখল করেছে, তখন তো তার প্রশংসা করা উচিত। তাকে আলাদা সম্মান দেওয়া উচিত। আজকে শাকিবকে নিয়ে যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছে, আমার মনে হয় এ দ্বন্দ্বের অবসান হওয়া উচিত। শাকিবের সঙ্গে একটা বোঝাপড়ায় আসা উচিত। ছেলেটা যখন ওই দেশে (কলকাতায়) এতটা নাম করল, এই জন্য তার প্রশংসা করতেই হবে।’ চলচ্চিত্র পরিবার কর্তৃক শাকিব খানকে অবাঞ্ছিত করা প্রসঙ্গে এই মন্তব্য করেন শামসুজ্জামান। আরও বলেন, ‘শাকিবের কথাবার্তা নিয়ে তর্কবিতর্ক করার কোনো দরকার নাই, তাকে নিষিদ্ধ করারও কোনো দরকার নাই। আমরা তো চিরকাল স্বপ্ন দেখেছি যে পশ্চিমবঙ্গে আমরা অভিনয় করব। এ শখটা আমাদের চিরকাল ছিল। আজকে শাকিব যখন সেই জায়গায় গিয়েছে, যখন একটা জায়গা সে দখল করেছে, আমাদের পরিচালক সমিতি এবং অভিনেতা সবার উচিত শাকিবের প্রশংসা করা।’ এশিয়ান টিভির ‘কমন সেন্স’ অনুষ্ঠানে এসে এসব কথা বলেন এ টি এম শামসুজ্জামান। অনুষ্ঠানটি ১১ আগস্ট রাত ১০টায় দেখানো হবে। এতে এ টি এম শামসুজ্জামানের সঙ্গে অতিথি হিসেবে আরও থাকবেন অভিনেতা মীর সাব্বির। গত ২৩ জুন চিত্রনায়ক শাকিবের শিল্পী সমিতির সদস্যপদ বাতিল এবং তাঁকে এফডিসিতে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে চলচ্চিত্র পরিবার। গত ১৮ জুলাই দেশের সিনেমার পরিচালক, প্রযোজক, অভিনয়শিল্পী, কলাকুশলীদের ১৬ সংগঠনের একাংশ নিয়ে গঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার একটি বৈঠক করে শাকিব খানের ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্ত নেয়। বৈঠক শেষে সংগঠনটি সরাসরি জানিয়ে দেয়, এখন থেকে নতুন ও পুরোনো কোনো সিনেমায় শাকিবের সঙ্গে কাজ করবে না বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার। পরদিন সংগঠনটির আহ্বায়ক ও অভিনেতা ফারুক প্রথম আলোকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘এখানে ভুল বোঝাবুঝি হচ্ছে। আমরা কাউকে বয়কট করিনি। আমরা বৈঠকে নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে আলাপ করেছি। যারা যৌথ প্রযোজনার নামে প্রতারণা করে সিনেমা বানিয়েছে বা কলকাতা থেকে নিয়ম না মেনে সিনেমা এনেছে, তাদের বিষয়ে আলোচনা করেছি। এ ছাড়া যারা “যৌথ প্রতারণার” সিনেমার সাফাই গাইতে গিয়ে উদ্ভট ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ কথা বলেছে, তাদের সঙ্গে চলচ্চিত্র পরিবারের ১৬ সংগঠনের কেউ কাজ না করার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখানে বয়কটের কিছু নেই।’

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর