শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, ২ মুহাররম, ১৪৩৯ | ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন (GMT)
শিরোনাম :
  • নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা রাষ্ট্রপতিকে দিয়েছে আ.লীগ: কাদের
  • ইসি নয়, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে হার্ডলাইনে যাবে বিএনপি
শনিবার, ০৮ জুলাই ২০১৭ ০৪:৪১:১৭ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

সৌদি প্রবাসীদের ওপর নতুন কর

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরবে বসবাসরত প্রবাসী ও তাদের ওপর নির্ভরশীল সদস্যদের ওপর নতুন কর আরোপ করেছে দেশটির সরকার। আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম উল্লেখযোগ্য পরিমাণ কমে যাওয়াতে ১ জুলাই থেকেই এই কর আদায়ের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ। গত দুই বছরে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম উল্লেখযোগ্য পরিমাণ কমে গেছে। এতে বেশ লোকসানের মুখোমুখি হয় সৌদি আরব। ফলে এক বছরে দেশটির বাজেট ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ১০ হাজার কোটি ডলার। এরপরই দেশটি অর্থনৈতিক সংস্কার নিয়ে নড়েচড়ে বসে। এরই মধ্যে ২০৩০ ভিশন নামে একটি রূপকল্প হাতে নিয়েছে সৌদি আরব। এরই আওতায় প্রবাসীদের ওপর ট্যাক্স আদায়ের এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী, প্রবাসীদের ওপর নির্ভরশীল প্রত্যেক সদস্যকে ২০১৭ সালের জুলাই থেকে মাসিক ভিত্তিতে ১০০ রিয়াল করে ফি দিতে হবে। এটা বছরে বছরে বাড়ানো হবে। ২০১৮ সালের জুলাইতে এই ফি হবে ২০০ রিয়াল, ২০১৯ সালে হবে ৩০০ রিয়াল আর ২০২০ সালে হবে ৪০০ রিয়াল। প্রবাসীদের হটিয়ে স্থানীয়দের জন্য কর্মসংস্থান বাড়াতে চায় সৌদি আরব। সে পরিকল্পনায় দেশটিতে প্রবাসীরা কাজ করে এমন কোম্পানির ওপরও কর আরোপ করেছে দেশটির সরকার। বছরে বছরে এ করও বাড়বে। যেসব কোম্পানিতে প্রবাসীর সংখ্যা স্থানীয় নাগরিকদের সমান বা তার কম, তাদের জন্য ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠানকে জনপ্রতি ৩০০ রিয়াল করে মাসিক ফি দিতে হবে। ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে এটা হবে ৫০০ রিয়াল। আর ২০২০ সালের জানুয়ারিতে হবে ৭০০ রিয়াল। স্থানীয়দের চেয়ে কোম্পানিতে প্রবাসী বেশি হলে ওই কোম্পানিকে ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে জনপ্রতি ৪০০ রিয়াল করে ফি দিতে হবে, ২০১৯ সালে দিতে হবে ৬০০ রিয়াল ও ২০২০ সাল থেকে দিতে হবে ৮০০ রিয়াল। গালফ নিউজের প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, যেসব প্রতিষ্ঠানে স্থানীয়দের চেয়ে বিদেশি কর্মী বেশি, তাদেরকে প্রত্যেক বিদেশি কর্মীর জন্য ২০০ রিয়াল করে লেভি (এক ধরনের কর) দিতে হয়। এই অর্থের পরিমাণও ২০২০ সাল পর্যন্ত বাড়ানো হবে। এর আগে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের ওপর কর আরোপের চিন্তা ছিল সৌদি সরকারের। তবে এ ধরনের সিদ্ধান্ত আপাতত নেওয়া হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন দেশটির একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

CLOSE[X]CLOSE

আরো খবর